Tripura: শীর্ষ আদালতের নির্দেশই সার - ভোটে অবাধ সন্ত্রাসের অভিযোগ বিরোধীদের

সিপিআইএমের অভিযোগ, ক্ষমতাসীন বিজেপির কর্মীরা বাইক নিয়ে এলাকাগুলোতে টহল দিচ্ছেন এবং ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য ভয় দেখাচ্ছেন। তাঁদের প্রার্থীদেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে।
Tripura: শীর্ষ আদালতের নির্দেশই সার - ভোটে অবাধ সন্ত্রাসের অভিযোগ বিরোধীদের
বিলোনিয়ায় অবাধ রিগিং এবং বুথ দখলের প্রতিবাদে এসডিএম অফিস ঘেরাও সিপিআইএম কর্মীদেরছবি সৌজন্যে ভিডিওর স্ক্রিনশট

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশই সার। ভোটের আগে তো বটেই, এমনকি ভোটপর্ব শুরু হয়ে যাওয়ার পরও স্বমহিমায় সন্ত্রাস চালাচ্ছেন শাসকদলের কর্মীরা। এমনটাই অভিযোগ বিরোধীদের। আজ সকাল ৭টা থেকে ত্রিপুরা পুর র্নির্বাচনের জন্য ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। রাজ‍্যের প্রধান বিরোধী বামেদের অভিযোগ, ক্ষমতাসীন বিজেপির কর্মীরা বাইক নিয়ে এলাকাগুলোতে টহল দিচ্ছেন এবং ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য ভয় দেখাচ্ছেন। তাঁদের প্রার্থীদেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। একই অভিযোগ রাজ‍্যের অপর এক বিরোধী তৃণমূলের।

প্রসঙ্গত, গত বুধবারই ত্রিপুরা সরকারকে সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। নির্বাচনের পর থেকে ভোটের ফল প্রকাশ পর্যন্ত যাতে কোনো রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা না ঘটে তা নিশ্চিত করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছিল।

সিপিআইএমের অভিযোগ, সুপ্রিম কোর্টের কোনো নির্দেশই মানছে না বিপ্লব দেবের সরকার। আগরতলা মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিলে বিপুলসংখ্যক দুষ্কৃতী ঢুকেছে। বাইকে করে গোটা এলাকা টহল দিচ্ছেন তাঁরা। সকলেই মাস্ক এবং হেলমেট পরে রয়েছেন। বাড়ি বাড়ি ঢুকে ভোটারদের হুমকি দিচ্ছেন তাঁরা। ভোটারদের বাড়িতে থাকার জন্য সতর্ক করা হচ্ছে। বিরোধী সমর্থকদের ভয়ঙ্কর পরিণতি হবে বলে ভয় দেখাচ্ছেন। গতকাল রাত থেকেই এটা শুরু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এই আগরতলা পুরসভা বামেদের দখলে ছিল এতদিন। এবার বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে প্রার্থী দিতে পারেনি বামেরা।

আজ ভোটগ্রহণ শুরুর পর থেকে একাধিক বুথ থেকে গন্ডগোলের খবর আসছে। সমস্ত অভিযোগ শাসকদলের বিরুদ্ধে। বিলোনিয়ায় সিপিআইএম প্রার্থীর বাড়িতে হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ। একাধিক বুথ বিরোধী এজেন্ট শূন্য। কোথাও বিরোধী পোলিং এজেন্টদের ওপর হামলা হয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in