উৎসব শেষের পরই দেশে হু-হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। ৯০ লক্ষ ছাড়িয়ে গেল দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। মোট মৃত্যু সংখ‍্যা ছাড়িয়ে গেল ১ লক্ষ ৩২ হাজার। উদ্বেগ বাড়িয়ে বাড়লো অ‍্যাক্টিভ কেসের সংখ্যাও। যদিও ৮৪ লক্ষেরও বেশি লোক এই মারণ ভাইরাসকে জয় করতে পেরেছেন।

 শুক্রবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৪৫ হাজার ৮৮২ জন, গতকাল এই সংখ‍্যাটা ছিল ৪৫ হাজার ৫৭৬। এই নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ লক্ষ ৪ হাজার ৩৬৫। এর মধ্যে সক্রিয় কেসের সংখ‍্যা ৪ লক্ষ ৪৩ হাজার ৭৯৪, যা গতকালের তুলনায় ৩ হাজার ৪৯১ বেশি। অর্থাৎ মোট সংক্রমিতের মধ্যে অ‍্যাক্টিভ কেস মাত্র ৪.৯৩ শতাংশ।

শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন ৪৪ হাজার ৮০৭ জন, গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ৪৮ হাজার ৪৯৩। এই নিয়ে দেশে মোট সুস্থতার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৪ লক্ষ ২৮ হাজার ৪০৯। সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৩.৬০ শতাংশ।

এখনও পর্যন্ত করোনা সংক্রমণে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১ লক্ষ ৩২ হাজার ১৬২ জন। যার মধ্যে শেষ ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ৫৮৪ জন, গতকাল ৫৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছিল। করোনা সংক্রমণে দেশে মৃত্যুর হার কমে হয়েছে ১.৪৭ শতাংশ।

মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক ও অন্ধ্রপ্রদেশ - সংক্রমণের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে এই তিনটি রাজ‍্য। কেন্দ্রীয় সরকারের পরিসংখ্যান অনুসারে সর্বাধিক সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে মহারাষ্ট্রে, ১৭ লক্ষ ৬৩ হাজার ৫৫, শেষ ২৪ ঘন্টায় ৫ হাজার ৫৩৫ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশকে ছাড়িয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে কর্ণাটক, সেখানে ৮,৬৭,৭৮০(+১,৮৪৯) জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮,৫৮,৭১১(+১,৩১৬)। চতুর্থ স্থানে থাকা তামিলনাড়ুতে সংক্রমিতের সংখ্যা ৭,৬৪,৯৮৯(+১,৭০৭) জন। উত্তরপ্রদেশকে সরিয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে কেরল, সেখানে সংক্রমিতের সংখ্যা ৫,৪৫,৬৪১(+৫,৭২২) জন।

দেশের মধ্যে দৈনিক সংক্রমণে শীর্ষে রয়েছে দিল্লি। পশ্চিমবঙ্গেও সংক্রমণ বাড়ছে উদ্বেগজনক হারে। শেষ ২৪ ঘন্টায় দিল্লিতে নতুন আক্রান্ত সংখ্যা ৭,৫৪৬। পশ্চিমবঙ্গে ৩,৬২০।

মৃতের সংখ্যার বিচারে প্রথমে রয়েছে মহারাষ্ট্র, সেখানে ৪৬,৩৫৬(+১৫৪) জন আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। কর্ণাটকে ১১,৬০৪(+২৬) জন, তামিলনাড়ুতে ১১,৫৫০(+১৯) জন, দিল্লিতে ৮,০৪১(+৯৮) জন ও পশ্চিমবঙ্গে ৭,৮৭৩(+৫৩) জনের মৃত্যু হয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক প্রকাশিত ২০ নভেম্বর সকালের তথ্য অনুসারে লিখিত। আরো বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের ওয়েবসাইটে  https://www.mohfw.gov.in

জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন