ভারতে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশই ভয়াবহ হয়ে উঠছে। একদিনে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লো সাড়ে ৫২ হাজার। বুধবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ৫২,৫০৯ জন। দেশে বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯,০৮,২৫৪ জন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন ১২,৮২,২১৫ জন। অ‍্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৫,৮৬,২৪৪ জন। করোনা সংক্রমিত হয়ে ভারতে মারা গেছেন মোট ৩৯,৭৯৫ জন। শেষ ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৮৫৭ জন এবং সুস্থ ঘোষণা করা হয়েছে ৫১,৭০৬ জনকে। দেশে কোভিড রোগীদের সুস্থ হয়ে ওঠার হার ৬৭.১৯ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় সরকারের পরিসংখ্যান অনুসারে সর্বাধিক সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে মহারাষ্ট্রে, ৪,৫৭,৯৫৬ টি, শেষ ২৪ ঘন্টায় ৭,৭৬০ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু, সেখানে ২,৬৮,২৮৫(+৫০৬৩) জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। তৃতীয় স্থানে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ, সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,৭৬,৩৩৩(+৯৭৪৭)। দিল্লিকে ছাড়িয়ে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে কর্ণাটক, সেখানে সংক্রমিতের সংখ্যা ১,৪৫,৮৩০(+৬২৫৯) জন। দিল্লিতে সংক্রমিতের সংখ্যা ১,৩৯,১৫৬(+৬৭৪) জন। উত্তরপ্রদেশে ১,০০,৩১০(+২৯৪৮) জন, পশ্চিমবঙ্গে ৮০,৯৮৪(+২৭৫২) জন ও তেলেঙ্গানাতে ৭০,৯৫৮(+২০১২) জনের শরীরে এই সংক্রমণ মিলেছে। গুজরাটে ৬৫,৫৯৯(+১০১৪) জন, বিহারে ৬১,৭৮৮(+২৪৬০) জন, আসামে ৪৮,১৬১(+২৮৮৬) জন, রাজস্থানে ৪৬,৬৭৯(+১৭০৪) জন, হরিয়ানাতে ৩৭,৭৯৬(+৬২৩) জন, ওড়িশায় ৩৭,৬৮১(+১,৩৮৪) জন, মধ্যপ্রদেশে ৩৫,০৮২(+৭৯৭) জন, কেরালায় ২৭,৯৫৬(+১০৮৩) জন, জম্মু ও কাশ্মীরে ২২,৩৯৬(+৩৯০) জন, পাঞ্জাবে ১৯,০১৫(+৪৮৮) জন, ঝাড়খন্ডে ১৩,৯৪০(+৪৬২) জন, ছত্তিশগড়ে ১০,২০২(+৪২৩) জন, উত্তরাখণ্ডে ৮,০০৮(+২০৮) জন, গোয়াতে ৭,০৭৫(+২৫৯) জন, ত্রিপুরায় ৫,৬২৮(+১২৩) জন, পুদুচেরিতে ৪,১৪৭(+১৬৫) জন, মণিপুরে ৩,০১৮(+৯৮) জন, হিমাচল প্রদেশে ২,৮৭৯(+৬১) জন, নাগাল‍্যান্ডে ২,৪০৫(+২৭৬) জন, অরুণাচল প্রদেশে ১,৭৯০(+৩৩) জন, লাদাখে ১,৫৩৪(+৪৯) জন, দাদরা নগর হাভেলি এবং দমন ও দিউতে ১,৩২৫(+৫১) জন, চন্ডীগড়ে ১,২০৬(+৪৭) জন, মেঘালয়ে ৯১৭(+১৫) জন, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ৯২৮(+৯৮) জন, সিকিমে ৭৮৩(+৯৫) জন ও মিজোরামে ৫০৪(+৩) জনের শরীরে সংক্রমণ পাওয়া গেছে।

মৃতের সংখ্যার বিচারে রাজ‍্যগুলির মধ্যে প্রথম রয়েছে মহারাষ্ট্র, এখনও পর্যন্ত মোট ১৬,১৪২(+৩০০) জন আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে রাজ‍্যে। তামিলনাড়ুতে ৪,৩৪৯(+১০৮) জন, দিল্লিতে ৪,০৩৩(+১২) জন, কর্ণাটকে ২,৭০৪(+১১০) জন, গুজরাটে ২,৫৩৩(+২৫) জন, উত্তরপ্রদেশে ১,৮১৭(+৩৯) জন, পশ্চিমবঙ্গে ১,৭৮৫(+৫৪) জন, অন্ধ্রপ্রদেশে ১,৬০৪(+৬৭) জন, মধ্যপ্রদেশে ৯১২(+১২) জন, রাজস্থানে ৭৩২(+১৭) জন, তেলেঙ্গানায় ৫৭৬(+১৩) জন, হরিয়ানায় ৪৪৮(+৮) জন, পাঞ্জাবে ৪৬২(+২০) জন, জম্মু ও কাশ্মীরে ৪১৭(+১০) জন, বিহারে ৩৪৭(+১৭) জন, ওড়িশায় ২১৬(+৯) জন, ঝাড়খন্ডে ১২৮(+৩) জন, আসামে ১১৫(+৬) জন, উত্তরাখন্ডে ৯৫(+৫) জন, কেরালায় ৮৭(+৩) জন, ছত্তিশগড়ে ৬৯(+৮) জন, গোয়াতে ৬০(+৪) জন, পুদুচেরীতে ৫৮(+২) জন, ত্রিপুরাতে ৩০(+২) জন, চন্ডীগড়ে ২০(+১) জন, হিমাচল প্রদেশে ১৪ জন, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ১২(+২) জন, লাদাখে ৭ জন, মেঘালয়ে ৫ জন, নাগাল‍্যান্ডে ৫ জন, মণিপুরে ৭ জন, অরুণাচল প্রদেশে ৩ জন, দাদরা নগর হাভেলি এবং দমন দিউতে ২ জন ও সিকিমে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের ওয়েবসাইট https://www.mohfw.gov.in/ -এর ৫ আগস্ট সকাল ৮টার তথ্য অনুসারে।

জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন