ভারতে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশই ভয়াবহ হয়ে উঠছে। একদিনে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লো ৫৭ হাজারেরও বেশি। শনিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ৫৭,১১৮ জন। দেশে বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৬,৯৫,৯৮৮ জন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন ১০,৯৪,৩৭৪ জন। অ‍্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৫,৬৫,১০৩ জন। করোনা সংক্রমিত হয়ে ভারতে মারা গেছেন মোট ৩৬,৫১১ জন। শেষ ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭৬৪ জন এবং সুস্থ ঘোষণা করা হয়েছে ৩৬,৫৬৯ জনকে। দেশে কোভিড রোগীদের সুস্থ হয়ে ওঠার হার ৬৪.৫৩ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় সরকারের পরিসংখ্যান অনুসারে সর্বাধিক সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে মহারাষ্ট্রে, ৪,২২,১১৮ টি, শেষ ২৪ ঘন্টায় ১০,৩২০ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু, সেখানে ২,৪৫,৮৫৯(+৫৮৮১) জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। দিল্লিকে ছাড়িয়ে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে অন্ধ্রপ্রদেশ, সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,৪০,৯৩৩(+১০৩৭৬)। চতুর্থ স্থানে থাকা দিল্লিতে সংক্রমিতের সংখ্যা ১,৩৫,৫৯৮(+১১৯৫) জন। কর্ণাটকে ১,২৪,১১৫(+৫৪৮৩) জন, উত্তরপ্রদেশে ৮৫,৪৬১(+৪৪২২) জন, পশ্চিমবঙ্গে ৭০,১৮৮(+২৪৯৬) জন ও গুজরাটে ৬১,৪৩৮(+১১৫৩) জনের শরীরে এই সংক্রমণ মিলেছে। তেলেঙ্গানাতে ৬২,৭০৩(+১৯৮৬) জন, বিহারে ৫১,২৩৩(+২৭৫৬) জন, রাজস্থানে ৪১,২৯৮(+১১৫৩) জন, আসামে ৪০,২৬৯(+১৮৬২) জন, হরিয়ানাতে ৩৪,৯৬৫(+৭১১) জন, ওড়িশায় ৩১,৮৭৭(+১৪৯৯) জন, মধ্যপ্রদেশে ৩১,৮০৬(+৮৩৮) জন, কেরালায় ২৩,৬১৩(+১৩১০) জন, জম্মু ও কাশ্মীরে ২০,৩৫৯(+৪৯০) জন, পাঞ্জাবে ১৬,১১৯(+৬৬৩) জন, ঝাড়খন্ডে ১০,৯৫৮(+৭৯১) জন, ছত্তিশগড়ে ৯,০৮৬(+৩২৫) জন, উত্তরাখণ্ডে ৭,১৮৩(+১১৮) জন, গোয়াতে ৫,৯১৩(+২০৯) জন, ত্রিপুরায় ৪,৯৭৮(+২৭২) জন, পুদুচেরিতে ৩,৪৭২(+১৭৪) জন, মণিপুরে ২,৬২১(+১১৬) জন, হিমাচল প্রদেশে ২,৫৬৪(+৫৮) জন, নাগাল‍্যান্ডে ১,৬৯৩(+১২৭) জন, অরুণাচল প্রদেশে ১,৫৯১(+১০৭) জন, লাদাখে ১,৪০৪(+২৬) জন, দাদরা নগর হাভেলি এবং দমন ও দিউতে ১,১০০(+৩৬) জন, চন্ডীগড়ে ১,০৫১(+৩৫) জন, মেঘালয়ে ৮২৩(+২০) জন, সিকিমে ৬৩৯(+২৯) জন, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ৫৪৮(+৭৭) জন ও মিজোরামে ৪১২(+৪) জনের শরীরে সংক্রমণ পাওয়া গেছে।

মৃতের সংখ্যার বিচারে রাজ‍্যগুলির মধ্যে প্রথম রয়েছে মহারাষ্ট্র, এখনও পর্যন্ত মোট ১৪,৯৯৪(+২৬৫) জন আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে রাজ‍্যে। দিল্লিতে ৩,৯৬৩(+২৭) জন, তামিলনাড়ুতে ৩,৯৩৫(+৯৭) জন, গুজরাটে ২,৪৪১(+২৩) জন, কর্ণাটকে ২,৩১৪(+৮৪) জন, উত্তরপ্রদেশে ১,৬৩০(+৪৫) জন, পশ্চিমবঙ্গে ১,৫৮১(+৪৫) জন, অন্ধ্রপ্রদেশে ১,৩৪৯(+৬৮) জন, মধ্যপ্রদেশে ৮৬৭(+১০) জন, রাজস্থানে ৬৭৪(+১১) জন, তেলেঙ্গানায় ৫১৯(+১৪) জন, হরিয়ানায় ৪২১(+৪) জন, পাঞ্জাবে ৩৮৬(১৬) জন, জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭৭(+১২) জন, বিহারে ২৯৬(+১৪) জন, ওড়িশায় ১৭৭(+৮) জন, ঝাড়খন্ডে ১০৬(+৩) জন, আসামে ৯৮(+৪) জন, উত্তরাখন্ডে ৮০(+৪) জন, কেরালায় ৭৩(+৩) জন, ছত্তিশগড়ে ৫৩(+২) জন, পুদুচেরীতে ৪৯(+১) জন, গোয়াতে ৪৫(+৩) জন, ত্রিপুরাতে ২১ জন, চন্ডীগড়ে ১৫(+১) জন, হিমাচল প্রদেশে ১৪ জন, লাদাখে ৭ জন, মেঘালয়ে ৫ জন, নাগাল‍্যান্ডে ৫ জন, মণিপুরে ৫(+১) জন, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ৫(+১) জন, অরুণাচল প্রদেশে ৩ জন, দাদরা নগর হাভেলি এবং দমন দিউতে ২ জন ও সিকিমে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের ওয়েবসাইট https://www.mohfw.gov.in/ -এর ১ আগস্ট সকাল ৮টার তথ্য অনুসারে।

জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন