বেসরকারি হাসপাতালে কোভিশিল্ডের প্রত্যেক ডোজের দাম (৬০০টাকা) বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন- এমনকি বাংলাদেশ, সৌদি আরব, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দেশগুলোতে "কোভিশিল্ড" ভ্যাকসিনের দাম ভারতের খোলা বাজারের তুলনায় অনেকটাই কম
বেসরকারি হাসপাতালে কোভিশিল্ডের প্রত্যেক ডোজের দাম (৬০০টাকা) বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ!

নয়াদিল্লি, ২৪ এপ্রিল: বেসরকারি হাসপাতালগুলোর জন্য সেরাম ইনস্টিটিউট ডোজ পিছু যে ৬০০ টাকা নির্ধারণ করেছে, তা সারা বিশ্বে সর্বোচ্চ। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার তত্ত্বাবধানে সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি এই কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের দাম ইউরোপ আমেরিকার বাজারের থেকেও ভারতের বাজারে বেশি। ফলে প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহলে।

সেরামের সিইও আদর পুনাওয়ালা জানিয়েছেন, তাঁর সংস্থা কেন্দ্রকে দেওয়া ১৫০টাকা প্রতি ডোজের উপরও লাভ রেখেছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, ভারত সরকারকে দেওয়া প্রথম ১০০ মিলিয়ন ডোজের প্রত্যেক ডোজের জন্য ২০০ টাকার বিশেষ ছাড় দেওয়া হয়েছিল। এরপর বেসরকারি বাজারে এই ভ্যাকসিনের প্রত্যেক ডোজ ১০০০ টাকা করে বিক্রি করেছে সেরাম।

কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসায় বেসরকারি বাজারে সেরাম ইনস্টিটিউটের ভ্যাকসিনের প্রত্যেক ডোজের বর্তমান দাম ৬০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য সেরাম ইন্সটিটিউট কেন্দ্রকে প্রতি ডোজ ১৫০ টাকা, রাজ্যকে ৪০০ টাকা এবং খোলা বাজারে প্রতি ডোজ ৬০০ টাকায় বিক্রি করবে বলে ঘোষণা করেছে আগেই।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন- এমনকি বাংলাদেশ, সৌদি আরব, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দেশগুলোতে "কোভিশিল্ড" ভ্যাকসিনের দাম ভারতের খোলা বাজারের তুলনায় অনেকটাই কম। ভারতে যেখানে একটি ডোজের দাম ৬০০ টাকা অর্থাৎ প্রায় ৮ ডলার। সেখানে বাংলাদেশে - ৪ ডলার, সৌদি আরবে- ৫.২৫ ডলার, দক্ষিণ আফ্রিকায়- ৫.২৫ ডলার, ব্রাজিলে- ৩.১৫ ডলার, গ্রেট ব্রিটেনে- ৩ ডলার, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে- ২.১৫-৩.৫ ডলার।

সেরামের সিইও আদর পুনাওয়ালার দাবি- কেন্দ্রীয় সরকারের অনুরোধে তাঁরা ১৫০ টাকায় কেন্দ্রকে ভ্যাকসিন বিক্রি করতে রাজি হয়েছেন। এতে তাঁদের কোন লাভই থাকবে না।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in