Covid-19: বেলাগাম সংক্রমণ, দৈনিক সংক্রমণের রেকর্ড ভেঙে শেষ ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ২ লক্ষের বেশি

এই প্রথম দেশে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়েছে এবং টানা পাঁচ দিন সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুর সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে এবং সক্রিয় কেসের সংখ্যা বেড়েছে লাখেরও বেশি।
Covid-19: বেলাগাম সংক্রমণ, দৈনিক সংক্রমণের রেকর্ড ভেঙে শেষ ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ২ লক্ষের বেশি
ছবি প্রতীকী

ছবিটা ক্রমশ মারাত্মক হয়ে উঠছে। প্রবল গতিতে প্রভাব বিস্তার করছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। প্রতিদিনই ভাঙছে দৈনিক সংক্রমণের রেকর্ড। শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে ২ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এই প্রথম দেশে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়েছে এবং টানা পাঁচ দিন সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুর সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে এবং সক্রিয় কেসের সংখ্যা বেড়েছে লাখেরও বেশি। গতকালের তুলনায় এই দুইই বেড়েছে।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ২ লক্ষ ৭৩৯, করোনাকালে এটাই সর্বাধিক সংক্রমণ। গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ১.৮৪ লক্ষ। আজকের পরিসংখ্যান নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ কোটি ৪০ লক্ষ ৭৪ হাজার ৫৬৪। ২৪ ঘন্টায় দেশে মারা গেছেন ১ হাজার ৩৮ জন, গতকাল যা ছিল ১ হাজার ২৭। এখনও পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৭৩ হাজার ১২৩ জনের। ২৪ ঘন্টায় সক্রিয় কেস ১,০৬,১৭৩ বেড়ে দেশে মোট সক্রিয় কেসের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪ লক্ষ ৭১ হাজার ৮৭৭।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সবথেকে বেশি প্রভাব ফেলেছে মহারাষ্ট্রে, যা সামলাতে আপতত হিমসিম খাচ্ছে প্রশাসন। গতকাল থেকেই রাজ্যে টানা ১৫ দিনের কার্ফু জারি করা হয়েছে। কেবলমাত্র জরুরি পরিষেবা চালু থাকবে। গোটা রাজ্যেই ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। একদিনে সেখানে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫৮ হাজার ৯৫২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২৭৮ জনের। রাজ্যে মোট আক্রান্ত ৩৫ লক্ষ ৭৮ হাজার ১৬০। করোনার কারণে রাজ্যে মোট মৃত্যু হয়েছে ৫৮ হাজার ৮০৪ জনের।

মহারাষ্ট্র ছাড়াও ছত্তিশগড়, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, কর্ণাটক, কেরল, তামিলনাড়ু, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট - এই আটটি রাজ্যের পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। উত্তরপ্রদেশে ২৪ ঘন্টায় দৈনিক সংক্রমণ ২০,৪৩৯। দিল্লি, ছত্তিশগড়, কর্ণাটক, তামিলনাড়ু, কেরল, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশে এই সংখ্যাটা যথাক্রমে ১৭,২৮২, ১৪,২৫০, ১১,২৬৫, ৭,৮১৯, ৮,৭৭৮, ৭,৪১০, ৯,৭২০।

গতকালের রেকর্ড ভেঙে দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশে আজ সর্বাধিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সন্ধান পাওয়া গেছে। দিল্লিতে ২৪ ঘন্টায় ১০৪ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং উত্তরপ্রদেশে ৬৭ জনের। রাজধানীতে ১৪টি হাসপাতালকে জরুরি ভিত্তিতে কোভিড হাসপাতালে রূপান্তরিত করা হয়েছে এবং শশ্মানের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। সিবিএসই-র দশম শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে এবং দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা স্থগিত রাখা হয়েছে আপাতত।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in