এক সংগ্রামের গল্প, অধ্যবসায়ের গল্প, স্বপ্ন পূরনের গল্প বিকাশ বহেল পরিচালিত 'সুপার থার্টি'। বিহারের পাটনার গণিতবিদ আনন্দ কুমার। নামটা হয়তো আগে অনেকেই শুনেছেন। এবার চিনে নিন ব্যাক্তিটিকে। হ্যাঁ 'সুপার থার্টি ' আসলে এই গণিতবিদের বায়োপিক। আর সিনেমাতে আনন্দ কুমারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন হৃত্বিক রোশন।

বিহারের এক অতি সাধারণ পরিবারের ছেলে আনন্দ। বাবা পোস্ট অফিসের সামান্য কর্মচারী। ছোটোবেলা থেকেই কষ্টেসৃষ্টে দিন চলা মেধাবী আনন্দ ছিলেন অঙ্কে দুরন্ত। স্বপ্ন দেখতেন গণিতশাস্ত্রকে উঁচু স্তরে নিয়ে যাওয়ার। ডাক পেলেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। হঠাৎ করে বাবার মৃত্যুতে তাঁর স্বপ্ন ব্যর্থ হয়। নিজের স্বপ্ন ব্যর্থ হলেও তিনি স্বপ্ন দেখিয়েছেন সমাজের পিছিয়ে পড়া, বিপিএল তালিকাভুক্ত দুঃস্থ ও মেধাবী ছাত্রদের। সম্পূর্ণ বিনা খরচে ছাত্র গড়ার কারিগর হয়ে উঠলেন তিনি। ছাত্রদের পৌঁছে দিতে লাগলেন তাদের যোগ্য জায়গায় এবং তাদের মধ্যে পৌঁছে দিলেন স্বপ্ন পূরণের খিদে।

সিনেমার মধ্যে বর্তমান সমাজের এক বাস্তব দিক তুলে ধরেছেন পরিচালক। বর্তমান সমাজ ব্যবস্থায় ছাত্র পড়ানোর নাম করে যে ব্যবসা শুরু হয়েছে তারই দৃষ্টান্ত ফুটে উঠেছে এই সিনেমায়। তবে আনন্দ তাদের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। তাই তাঁকে অসংখ্যবার কঠিন সমস্যার মোকাবিলা করতে হয়েছে।

এবার আসা যাক অভিনয় প্রসঙ্গে। ২০১৭ সালে কাবিল ছবির পর ফের বড় পর্দায় এলেন হৃত্বিক রোশন। আর এসেই বাজিমাৎ। অনবদ্য অভিনয়ে বাস্তবের আনন্দ কুমারকে প্রত্যক্ষ করবে প্রতিটি দর্শক। তবে শুধু অঙ্ক বা ছাত্র পড়ানো নয়, নতুন অভিনেত্রী ম্রুণাল ঠাকুরের সাথে দুষ্টু মিষ্টি প্রেম মন কাড়বে আপনার। এছাড়া দুর্নীতিপরায়ন নেতা হিসেবে পঙ্কজ ত্রিপাঠীও নজর কেড়েছেন।

তবে সিনেমার শেষ হাফে অতিনাটকিয়তা, অতিরিক্ত বলিউডি হালচাল, আইটেম ডান্স ইত্যাদি প্রবেশ করানোর জন্য কিছুটা বোরিং ফিল হতেই পারে। তবে আড়াই ঘন্টার শেষে, এ এক লড়াইয়ের গল্প, এ এক মহৎ উদ্দেশ্যর গল্প, এ এক আদর্শ শিক্ষকের গল্প।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন